তৃতীয় বিশ্বের ঐক্যের জন্য ৬ দফা …

(llbangla.org)

১. মোট কথা হলো, লিডিং লাইট কমিউনিজম পৃথিবীর সকল জাতীর মধ্যে ঐক্য প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করছে সর্বত্র সাম্যবাদ কায়েমের মহান উদ্দেশ্যে । সাম্যবাদ ঘোষনা করেছে এক দল আর এক দলের উপর থেকে সকল প্রকার শোষন বন্ধ করতে হবে । আর এটাই হলো দুনিয়ার শান্তির একমাত্র পথ ।

২. লিডিং লাইট কমিউনিজম তৃতীয় বিশ্বের ঐক্য প্রতিষ্ঠার ব্যাপারে অধিকতর জোর দিচ্ছে । প্রথম বিশ্বকে মোকাবেলা করে তাদেরকে পরাজিত করতে, আর এটা এখন কাঙ্খীত ও বটে ।এখন তৃতীয় বিশ্বের যত সংখ্যক বেশী সম্ভব, তত বেশী দেশ নিয়ে বহু জাতীযতার মিলনে একটি জোট গড়ে তোলা এখন সময়ের দাবী । আর এই জোট ইতিহাসিক প্রয়োজনে বিবর্তনের ধারাবাহিকতায় একটি বহুজাতিক দেশে পরিনত হবে ।

৩. তৃতীয় বিশ্বে বহুজাতিক ভাবে গড়ে উঠা কাঠামোর ভেতর অবশ্যই ছোট ছোট জাতি গুলোর নিজস্ব মূল্যবোধ ও সাংস্কৃতিকে সন্তুষজনক ভাবে লালন পালন ও তার উন্নয়নের ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে । এর অর্থ হলো আকারে ছোট জাতি গুলোকে পূর্ণ সহায়তা প্রদান করা হবে : এমনকি তাদের সকল প্রকার অধিকার নিশ্চিত করা হবে । সাংস্কৃতিক বিষয়ে এটুকু বলা যায় যে, খুব প্রতিক্রিয়শীল না হলে গড়ে উঠা নতুন তৃতীয় বিশ্বের বৃহত্তর পরিসরে তা চর্চা করতে ও সার্বিক সহায়তা করা হবে । এমনকি, অবশ্যই অফিসিয়াল ভাষা হিসাবে স্থানীয় ভাষা ব্যবহারের পূর্ণ সুযোগ দেয়া হবে । আইনগত সহায়তা ও সহযোগীতা দেয়া হবে যেন স্ব স্ব সংস্কৃতির প্রচার ও প্রসার ঘটানো যায় । প্রশাসনিক ভাবে ও বৃহ্ত্তর পরিসরে গড়ে উঠা তৃতীয় বিশ্বের বহুজাতিক রাষ্ট্রে ছোট জাতি গুলোর জন্য তাদের সংশ্লিষ্ট পদগুলো ও ছেড়ে দেয়া হবে । যদি ছোট জাতি গুলোর জমি অধিগ্রহন করা হয়, তবে প্রয়োজনে তা তাদেরকে ফেরত দেওয় হতে পারে এবং অধিগ্রহনের সময় তাদের জন্য অধিক মূল্য ও প্রদান করা যেতে পারে ।

৪. লিডিং লাইট কমিউনিজম সকল শোষিত জাতিস্বত্বাকে ব্যাপক হারে স্বশাসন প্রদন করবে । যদি অন্যকোন শোষিত জাতিস্বত্তর স্বশাসনের উপর কেন প্রকার বিরোপ আঘাৎ না আসে, তবে সকল প্রকার স্বশাসন গ্রহন যোগ্য হবে । লিডিং লাইট কমিউনিজম এক নতুন ধরনের রাষ্ট্র ব্যবস্থার উন্মেষ ঘটাতে চায় ; যেখানে অধিকতর মাত্রায় স্বশাসন নিশ্চিত হবে, তবে মৌলিক অদর্শের সাথে সাংঘর্ষিক ও অন্য জাতি স্বত্বাকে শোষন এবং সাম্রাজ্যবাদকে স্বগত জানায় সেই বিষয়ে সতর্কতা বজায় রাখা হবে । তা অনুমোদিত ও নয় । একটি শোষিত জাতি অন্য জাতির সহায়তা ছাড়া নিজস্ব স্বকীয়তা বজায় রাখতে পারবে না ।

উদাহরন হিসাবে বলা যায় যে, লিডিং লাইট কমিউনিজম কোন প্রকার তথাকথিত জাতীয় স্বাধিনতাকে অনুমোদন করবে না । অথবা সাম্রজ্যবাদ সমর্থিত স্বাধিনতা আন্দেলন কে ও অনুমোদন দেয়া হবে না । যেসব জায়গায় সরাসরি ও স্পষ্টভাবে বিভক্তিগত কারনে অন্যজাতি স্বত্বার উপর শোষনের পথ প্রশস্ত হয়, সাম্রাজ্যবাদের নিয়ন্ত্রন প্রতিষ্টি হয়, সেই সব জায়গায় লিডিং লাইট কমিউনিজম কোন প্রকার বিভক্তি মেনে নিবে না বরং তা প্রত্যখান করবে । জাতি পুঁজার চাইতে ও সাম্রাজ্যবাদ আমাদের বড় শত্র“ । সাম্রাজ্যবাদী শয়তানদের সাথে কোন প্রকার দহরম মহরম কোন ভাবেই সত্যিকার স্বধিনতা ও স্বকীয়তা নিশ্চিত হতে পারেনা ।

৫. লিডিং লাইট কমিউনিজম তৃতীয় বিশ্বের ঐক্য গড়ে তুলতে কাজ করছে , এর উদ্দেশ্যই হলো প্রথম বিশ্বের ঐক্যে ফাটল ধরানো এবং চুড়ান্ত ভাবে প্রথম বিশ্বকে সর্ম্পূণরূপে চুরমার করে দেয়া । ্অন্যদিকে মার্কিন সাম্রজ্যবাদের সহায়তা করতে কেহ কেহ তৃতীয় বিশ্বের গড়ে উঠা ঐক্যকে ভাঙ্গতে চেষ্ঠা করছে । তাদের সেই প্রচেষ্ঠা নিিতগত ভাবেই সমাপ্তি টানা উচিৎ ।

৬. যেসকল জাতি সমূহ এখন ও প্রথম বিশ্বের নিয়ন্ত্রনাধীন (হতে পারে তারা সরাসরি শোষিত হচ্ছে না )লিডিং লাইট কমিউনিজম নিপিড়িত জাতি সমূহের স্বসিদ্ধান্ত গ্রহনের জন্য সার্বিক সহায়তা করবে । বিশেষ ভাবে প্রথম বিশ্বের ও সাদা মানুষের নিয়ন্ত্রনাধীন জাতি সমূহ যেমন কানাডা, অষ্ট্রেলিয়া এবং সেই সকল দেশের আদিবাসী স¤প্রদায়কে তাদের স্বসিদ্ধান্ত গ্রহনের বিষয়টি নিশ্চিত করতে চায় । এছাড়া অথিরূয়া কর্তৃক মওরি জাতি, আমেরিকা কর্তৃক দখলকৃত মেক্সিকোর উত্তর অঞ্চল, ফিলিস্তিন, এবং হাওয়াই দ্বীপ এর অন্যতম ।
Advertisements