বলশেভিক ও স্ট্যালিন কি সত্যিই মানুষ মেরেছিলেন?

(llcobangla.org)

কমিউনিজমের শত্র“রা সর্বদাই একটা প্রচার করে এসেছে যে, বলশেভিক ও স্ট্যালিন মিলিয়ন মিলিয়ন মানুষ হত্যা করেছে। অদ্যাবধি তারা তার কোন সুনির্দিষ্ট সংখ্যা বলতে পারেনি বরং অন্ধকারের ঢিল ছোড়ার মত নানা সময় ফুলিয়ে ফাঁপিয়ে কমিউনিজমের বদনাম করে আসছে । সৌভিয়েত সমাজতন্ত্রের প্রয়োগ কালে কিছু লোক মারা গিয়েছিল এটা সত্য, তাবে বিরোধীরা যেভাবে প্রকাশ করে তা মোটেই সত্য নয়। সামাজিক বিপ্লবের নানা স্তরে কিছু ভূল ত্র“টি হওয়া অস্বাভাবিক নয়। এটা খুবই জঠিল প্রশ্ন যে, কতটি মৃত্যু এড়ানো যেত আর কতটি অনিবার্য ছিল । এটা ও সত্যি যে সেই সময়ে বহু মানুষ মারা গিয়েছিলেন আখাল দেখা দেয়ার কারণে । আর এই আখাল বলশেভিকদের নেতৃত্তে¡ আশার বহু আগে থেকেই চলছিল । সেই অনিবার্য মৃত্যু নিশ্চয়ই পরিকল্পিত ছিল না, বরং বলশেভিকদের পরিকল্পনা ছিল মানুষের আয়ু বাড়ানোর জন্য, মানুষ নিধন করা নয়। আমাদের মন্ধ বিষয় গুলো দেখার পাশাপাশি ভালো দিক গুলো ও দেখা উচিৎ। সৌভিয়েত রাশিয়ায় মানুষের আয়ুষ্কাল দ্বিগুন হয়েছিল। শিশু মৃত্যুর হার অনেক কমে ছিল । লেখা পড়া জানা মানুষের হার দাঁড়িয়েছিল একশত ভাগে। নারী ও মেহেনতী মানুষ লাভ করেছিল রাজনৈতিক ও সামাজিক অধিকার এবং তাদের পূর্ণ মর্যাদা। বুর্জোয়া গনমাধ্যম যেভাবে স্ট্যালিনের শাসন আমলকে চিত্রায়িত করে তা একেবারেই বাস্তবসম্মত নয়। আমরা দেখতে পাই সেখানে সুদৃঢ় সামাজিক সংগঠন, শৃখলা এবং আদর্শগত ঐক্য  যার ফলে তারা নাজিবাহিনীকে নাস্তানাবুদ করতে পেড়েছিল। সেই নাজিদের উদ্দেশ্য ছিল সৌভিয়েত জনগনকে নিধন করা অথবা যারা বেচেঁ থাকবে তাদেরকে দাসে পরিনত করা। স্ট্যালিনের নেতৃত্ব ফ্যাসিবাদীদের সেই স্বপ্নসাধ ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছিল। সামগ্রীক বিবেচনায়, সৌভিয়েত জনগন পুঁজিবাদী শাসনের তুলনায় সমাজতান্ত্রিক ব্যবস্থায় অনেক উন্নত জীবন যাপন করতে পেড়েছিল।

আমাদেরকে মনে রাখতে হবে এপর্যন্ত সমাজতন্ত্রের তুলনায়  পুঁজিবাদীরা দুনিয়ার বুকে কি পরিমান মানুষ খুন করেছে। তারা পুজিঁবাদের সূচনাই করেছে আমেরিকার মানুষকে গণহত্যা ও তাদের সকল সম্পদ লুন্ঠন করে। একটি বিশাল মাহাদেশের মানুষকে নিধন করে ফলেছে। আফ্রিকার মিলিয়ন মিলিয়ন মানুষকে হত্যা অথবা দাসে পরিণত করেছে। এমনকি আজো পুঁিজবাদ প্রতিবছর তৃতীয় বিশ্বের মিলিয়ন মিলিয়ন মানুষকে হত্যা করছে। আমেরিকা নানা বাহানায় দুনিয়া জুড়ে যুদ্ধ পরিচালনা করছে। পুঁিজবাদ আজ আমাদেরকে একটি মহা প্রকৃতিক বিপর্যয়ের দিকে নিয়ে যাচ্ছে, যা আমাদের সকলের বিনাশ ডেকে আনতে পারে। পুঁিজবাদের করালগ্রাস অনেক ভয়াবহ। সমাজতন্ত্র এবং কমিউনিজমই হলো একমাত্র এবং প্রকৃত সমাধান। আমরা যদি সমাজতন্ত্র এবং কমিউনিজম এর জন্য আমরা লড়াই না করি তবে এই চলমান খুনি ব্যবস্থা স্থায়ীরূপ ধারণ করতে পারে। এ কে এম শিহাব

Advertisements