গোপন তৎপরতা না চালানোর জন্য আমেরিকার প্রতি কিউবা আহবান জানিয়েছে…

হাবানা (এ এফ পি) – কিউবা মার্কিনিদেরকে সকল প্রকার গোপনীয় কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকার জন্য আহবান জানিয়েছে। সম্প্রতি ওয়াসিংটন টইটারের মত একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের দ্বারা কমিউনিস্ট পার্টির বিরুদ্বে অপপ্রাচার চালানোর পর কিউবা এই আহবান জানায়।
 হোয়াট হাউস এক ঘোষনায় এর সত্যতা স্বীকার করেছে এবং বলেছে কারো বরুদ্বে প্রচার চালানো নাকি তাঁদের উদ্দেশ্য নয়।
কিউবার পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের কর্মকর্তা  মি। ফিদেল এক ইমেইল বার্তায় এ এফ পি কে জানিয়েছেন যে, “ অ্যামেরিকা কে অবশ্যই আন্তর্জাতিক আইন, জাতি সংঘের বিধি বিধানের প্রতি শ্রদ্বাশীল, অন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মতামতের প্রতি সম্মান দেখিয়ে তাঁদের সকল প্রকার গোপনীয় কর্মকান্ড বন্দ্ব করা উচিৎ।”
হোয়াইট হাউজের মুখপাত্র জে, কার্নী বলেন, আসোসিয়েট প্রেসের এই কর্মসূচিটি উন্নয়নের সূচনাতেই কিউবা সরকারের বাধার সম্মোখিন হয়েছে।
তিনি বলেন এই কর্মসূচিটি আমাদের কোন গোপনীয় কাজ নয়, এটা তৈরী করা হয়েছে – আমেরিকার আইন বিষয়ে কংগ্রেসের বিতর্কের জন্য।
তবে ইতিমধ্যেই মি. ফিদেল এপি কে কিউবা সরকারের পক্ষ থেকে আবার তাদের অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন- “ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কিউবার বিরুদ্বে তাঁর অপকর্মের পরিকল্পনার কথা আবার স্বীকার করল।”
তাঁদের এই অপকর্মের পরিকল্পনার উদ্দেশ্যই হোল আমাদের প্রিয়দেশকে অস্থির করে সরকারের পরিবর্তন আনা। পরিবর্তন করা আমাদের রাজনৈতিক কাঠামোকে। তাঁর জন্য মার্কিনিরা  বছরের পর বছর মোটা অংকের অর্থ ও বিনিয়োগ করে চলেছে। “
ইউ এস এ আই ডি র মুখপাত্র যিনি এই প্রকল্পের প্রতিস্টাতা মি. মিট হেরিখ, “তিনি জানালেন এই প্রকল্পটির নাম দেয়া হয়েছে “জানজানেউ” কিউবার ভাষায় যার অর্থ হল – হ্যমিংবার্ড। ইহা একটি কিউবান মঞ্চের নাম। এখানে সকলেই নিজেদের স্বধীন মতামত প্রকাশ করতে পারবেন।”
১৯৬১ সালের পর থেকে আমেরিকার সাথে কিউবার কোন কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই। ওয়াসিংটন কমিউনিস্ট পার্টির বিরুদ্বে সেই সময় থেকেই অবরোধ আরোপ করে আসছে। – একে এম শিহাব

Advertisements